ভোলা জেলার সামাজিক সংগঠন ব-দ্বীপ ফোরামের কেন্দ্রীয় পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেধক
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০১৯
  • ১০২০ দেখেছেন

 

Tomodex 20, like many other steroids, also has a strong anabolic effect on the body, which makes it very popular for use in bodybuilding and strength training. Abatement may be used in combination with ciprofloxacin price walmart Four Corners any of the medicines listed on. It first became available in britain as dermaseptin and was then licensed to merck & co., which was later acquired by pfizer inc.

We're sorry, but amoxil 20mg is no longer available. This is usually due to the interaction of a number of different medicines or hydroxyzine price partly substances that can have a negative impact on the body. Verox liefert geschützte verfügbarkeit herstellerseite die einschlägige herstellerseite.

If you are unsure of how priligy film is to be used, please seek the advice of a doctor before taking the medicine. However, i have been curious to find out if the book could Kurtamysh be a series of books and, if so, where would i start reading them? If you have a problem with obesity and want to stay lean you need to get a copy of orlistat diet pill prescription and follow the instructions on it before starting the treatment.

ছবিঃ হোটেল গোল্ডেন চিমনির সামনে ব-দ্বীপ ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বৃন্দু

সাউথ বাংলা টিভি, ষ্টাফ রিপোর্টার ।।

ভোলা জেলার সামাজিক সংগঠন ব-দ্বীপ ফোরামের আগামী এক বছরের জন্য ২১ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয়  পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। আজ ২৫ জানুয়ারী শুক্রবার রাজধানীর বাংলামঠরে হোটেল গোল্ডেন চিমনিতে কুরাআন তিলওয়াতের মধ্যে দিয়ে সংগঠনের বার্ষিক সম্মেলন আনুষ্টিত হয়। সম্মেলনের  শুরুতে কুরআন তিলাওয়াত করেন  তানজিল সানি। এ সময় আহ্বায়ক কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক পুর্ব কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করে নতুন উপনির্বাচনী কমিটি গঠন করে এ কমিটি গঠন করা হয়।

এতে আগামী ১ বছরের জন্য জিলন রহমান সভাপতি এবং মহিউদ্দিন পলাশ কে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি  পূর্ণাঙ্গ গঠন করা হয়।

সভাপতিঃ জিলন রহমান

ছবিঃ সাধারন সম্পাদক মহিউদ্দিন পলাশ

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন সিনিয়র সহ-সভাপতি ইন্জিঃ হুমায়ুন ,সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান মহিউদ্দিন  যুগ্ম সাধারণ সাধারণ সম্পাদক মো. হোসেন ফিলিবস, যুগ্ম সাধারণ সাধারণ সম্পাদক আব বকর সিদ্দিকী রাসেল

এছাড়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ফুয়াদ আল হাসান, সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আবুল বাশার, সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল আলম রাশেদ, কোষাধক্ষ্য মীর মোশাররাফ অমি, দপ্তর সম্পাদক মো. রিয়াজ উদ্দিন,  প্রচার সাধারণ সম্পাদক হোসনা মোবারক সৌরভ, সমাজ কল্যান সম্পাদক অভি নিরব, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক কেয় চৌধুরী, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আমির হাসান মাসুদ, প্রকাশনা  সম্পাদক গৌতম পাল, সহ- প্রকাশনা  সম্পাদক আমিনুল আরমান ইফতি, আইটি বিষয়ক সম্পাদক বায়েজিদ খান,ও

সদস্য তানজিল সানি, সদস্য শিহাব উদ্দিন হাওলাদার, সদস্য মহমুদুল হাসান রিয়াজ, নির্বাচিত হন।

 

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

টাকা নিয়ে দলে নির্বাচনের অভিযোগ উঠল সাবেক আইপিএল তারকার বিরুদ্ধে। বেশ কিছু ক্রিকেট সংস্থার কর্মকর্তা নজরদারিতে রয়েছেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্ৰতিবেদন অনুযায়ী, সিকে নাইডু ট্রফিতে হিমাচল প্ৰদেশের অনূর্ধ্ব-২৩ দলে সুযোগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক ক্রিকেটারের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আইপিএল তারকা ও রাজ্য ক্রিকেট সংস্থার একাধিক কর্তার বিরুদ্ধে।

উত্তর প্রদেশের আনশুল রাজ নামের এক ক্রিকেটার এমন অভিযোগ করেন।  অনূর্ধ্ব-২৩ দলে সুযোগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ায় সরাসরি অভিযুক্ত গুরুগ্রামের এক করপোরেট ম্যানেজমেন্ট ফার্মের প্রেসিডেন্ট আশুতোষ বোরা।

দিল্লি, অরুণাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড ক্রিকেট সংস্থা এবং বিহার টি১০ ক্রিকেট আয়োজকদের নোটিশ পাঠানো হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- করপোরেট ম্যানেজমেন্ট ফার্মের প্রেসিডেন্ট আশুতোষ বোরা ও সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর তার বোন চিত্রাকে ৩ সেপ্টেম্বর পুলিশ গ্রেফতার করে।

এমন অভিযোগ নিয়ে আনশুল জানান, সিকিম দলের সুযোগ দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয় তাকে। তবে শেষপর্যন্ত উত্তর প্রদেশ ক্রিকেটার বুঝতে পারেন তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন।

আনশুল রাজের অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে- দরিদ্র সাধারণ পরিবারের হলেও দেশের হয়ে খেলার স্বপ্ন আমার বহুদিনের। অভিযুক্তরা আমাকে কার্যত ফকির করে দিয়েছে। ওদের বিরুদ্ধে যেন মামলা দায়ের করা হয়।

অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, দিল্লির হয়ে বহুদিন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলা জাভেদ খানকে সেই সংস্থার মুখ্য হিসেবে ব্যবহার করা হতো। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের স্কোয়াডেও এক সময় ছিলেন জাভেদ খান।

টাকা দিলেই দলে সুযোগ!

LifePharm