পিসিবির কথায় কান দিও না: বাবরকে শোয়েব

নিজস্ব প্রতিবেধক
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২১১ দেখেছেন

ভিন্নমত আর প্রভাব বিস্তারের কারণে পাকিস্তান ক্রিকেটে সবসময়ই অস্থিরতা বিরাজ করে। খেলায় যেমন পাকিস্তান অনুনেময় তেমনি সিদ্ধান্ত গ্রহণেও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড অনেকটা অস্থির।

খেলোয়াড়দের একাদশ সাজানো, অধিনায়ক, কোচ –এমনকি প্রধান নির্বাচকের পদেও কখন কী সিদ্ধান্ত আসে তা বলা মুশকিল।

যে কারণে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তিন ফরম্যাটে অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া ইনফরমার ব্যাটসম্যান বাবর আজম।

যদিও তার এই দুশ্চিন্তাকে কমিয়ে দিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান।

তিনি বাবরকে নিশ্চয়তা দিয়েছেন, পিসিবিপ্রধান এহসান মানি ও তার দায়িত্ব যতদিন আছে, ততদিন বাবরকে সরানো হবে না। দীর্ঘ মেয়াদে পাকিস্তানকে নেতৃত্ব দেয়ার পরিকল্পনায় রয়েছেন বাবর।

তবে পিসিবি কর্মকর্তাদের এমন সব নিশ্চয়তায় বাবরকে কান না দিতে পরামর্শ দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক গতি তারকা শোয়েব আখতার।

বাবরকে সতর্ক করে দিয়ে শোয়েব জানিয়েছেন, নিজের ক্যারিয়ারে এমন কথা অনেক শুনেছেন তিনি।

সম্প্রতি পিটিভির একটি শোতে বাবরকে একপ্রকার সতর্ক করে দিয়ে রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস বলেছেন, পাকিস্তান ক্রিকেটে প্রধান নির্বাহী বা চেয়ারম্যানরা ঠিক একই রকম কথা বলে। এমন কথা আগেও শুনেছি।  আমার মনে আছে, একসময় বলা হয়েছিল– রশিদ লতিফ ভাই ৬ বছরের জন্য অধিনায়ক থাকবেন। কিন্তু তা আর হলো কই! আমি গত ২৪ বছরে ক্রিকেটে অনেকের উত্থান-পতন দেখেছি।

মানসিকভাবে দৃঢ় না হলে এবং পারফরম্যান্স না করতে পারলে কেউ বাবরকে সমর্থন করবে না বলে মনে করেন শোয়েব।

এর পর বাবরকে উদ্দেশ্য করে শোয়েব আখতার বলেন, যখন কেউ সত্যিকারের তারকা হওয়ার পথে এগিয়ে যায়, তখন কিছু মানুষ চেষ্টা করে তাকে টেনে নিচে নামাতে এবং কষ্ট দিতে। ওই সময়ই তোমাকে প্রমাণ করতে হবে, তুমি কতটা দৃঢ়, কি করতে পারবে। তোমাকে এখন অধিনায়ক, খেলোয়াড় ও ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজেকে বিকশিত করতে হবে।  যাতে সবাই তোমাকে লৌহমানব হিসেবে জানে।

উল্লেখ্য, গত বছরের অক্টোবরে আজহার আলিকে টেস্ট অধিনায়কত্ব দেয়া হয়। একই সময় সরফরাজ আহমেদকে সরিয়ে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে বাবর আজমকে অধিনায়ক করা হয়। চলতি বছরের মে মাসে ওয়ানডের অধিনায়কত্বের দায়িত্বও বাবরকে দেয় পিসিবি।  আর নভেম্বরে আজহার আলিকে সরিয়ে টেস্টের দায়িত্ব দেয়া হয় বাবরকে।

প্রসঙ্গত, বাবরের নেতৃত্বে এখন পর্যন্ত তিন ওয়ানডে ও ১১ টি-টোয়েন্টি খেলেছে পাকিস্তান। আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরে টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে তার যাত্রা শুরু হবে।

তথ্যসূত্র: ক্রিকেট পাকিস্তান

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

টাকা নিয়ে দলে নির্বাচনের অভিযোগ উঠল সাবেক আইপিএল তারকার বিরুদ্ধে। বেশ কিছু ক্রিকেট সংস্থার কর্মকর্তা নজরদারিতে রয়েছেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্ৰতিবেদন অনুযায়ী, সিকে নাইডু ট্রফিতে হিমাচল প্ৰদেশের অনূর্ধ্ব-২৩ দলে সুযোগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক ক্রিকেটারের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আইপিএল তারকা ও রাজ্য ক্রিকেট সংস্থার একাধিক কর্তার বিরুদ্ধে।

উত্তর প্রদেশের আনশুল রাজ নামের এক ক্রিকেটার এমন অভিযোগ করেন।  অনূর্ধ্ব-২৩ দলে সুযোগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ায় সরাসরি অভিযুক্ত গুরুগ্রামের এক করপোরেট ম্যানেজমেন্ট ফার্মের প্রেসিডেন্ট আশুতোষ বোরা।

দিল্লি, অরুণাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড ক্রিকেট সংস্থা এবং বিহার টি১০ ক্রিকেট আয়োজকদের নোটিশ পাঠানো হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- করপোরেট ম্যানেজমেন্ট ফার্মের প্রেসিডেন্ট আশুতোষ বোরা ও সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর তার বোন চিত্রাকে ৩ সেপ্টেম্বর পুলিশ গ্রেফতার করে।

এমন অভিযোগ নিয়ে আনশুল জানান, সিকিম দলের সুযোগ দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয় তাকে। তবে শেষপর্যন্ত উত্তর প্রদেশ ক্রিকেটার বুঝতে পারেন তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন।

আনশুল রাজের অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে- দরিদ্র সাধারণ পরিবারের হলেও দেশের হয়ে খেলার স্বপ্ন আমার বহুদিনের। অভিযুক্তরা আমাকে কার্যত ফকির করে দিয়েছে। ওদের বিরুদ্ধে যেন মামলা দায়ের করা হয়।

অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, দিল্লির হয়ে বহুদিন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলা জাভেদ খানকে সেই সংস্থার মুখ্য হিসেবে ব্যবহার করা হতো। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের স্কোয়াডেও এক সময় ছিলেন জাভেদ খান।

টাকা দিলেই দলে সুযোগ!

LifePharm