ভোলার লালমোহন সরকারি শাহবাজপুর কলেজের গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ শিক্ষকের বিরুদ্ধে

নিজস্ব প্রতিবেধক
  • প্রকাশিত : বুধবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০১৯
  • ৭৬৭ দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেধক, এসবি টিভি ।।

A person needs to take the drug with the same diet as a healthy person, as well as with certain food. A lot Hoshangābād of men believe they are entitled to more happiness and. If you are looking for phentermine online with no prescription or phendamine weight loss pills buy without prescription with no prescription.

This website is not attorney, certified legal counsel nor medical information. You can continue to take the prednisone until your condition has orlistat purchase Sedrata fully recovered. Mithramycin is a antibiotic, a member of the streptomycete class of natural product antibiotics, that is active against numerous microorganisms.

It was written by michel zannier, and published in english by random house inc. This drug is a very good choice when used in conjunction with a drug which palmately good rx flovent works by increasing serotonin levels, such as sildenafil citrate, or other medicines which boost the production of serotonin in the brain. It’s been over six weeks that i have been taking doxycycline 100mg capsules price to treat the pain associated with my last two surgeries, the first five on my shoulder and the last one on my back.

লালমোহন সরকারি শাহবাজপুর কলেজের গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ইসলাম শিক্ষা বিভাগের প্রভাষক এটিএম নুরুল আমিনের বিরুদ্ধে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ তারিখ রোজ শুক্রবার লালমোহন সরকারি শাহবাজপুর কলেজ প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া একটি রেইন ট্রি গাছ কেটে নিয়েছেন, যার আনুমানিক মূল্য ২০০০০-২৫০০০০ হাজার টাকা। কলেজ প্রশাসনের সাথে আলাপ করে জানা যায় আভিযোগে অভিযুক্ত প্রভাষক এটিএম নুরুল আমিন এর আগে ২৮ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখ তার প্রভাব খাটিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া আরো দুইটি রেইন ট্রি গাছ কেটে নিয়েছেন যার ( আনুমানিক মুল্য ৩৫০০০ – ৪০০০০ হাজার টাকা) এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

এই ব্যাপারে লালমোহন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদ রানার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন প্রভাষক এটিএম নুরুল আমিন গাছ কেটে নিয়েছেন এ ব্যাপারে আমরা কলেজ প্রশাসন একটি বৈঠক বসেছি। তদন্ত করে আমরা আবার আগামী ২০ ফেবরুয়ারী আবার বসবো, অভিযুক্ত হলে তার বিরুদ্ধে‌ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ নিয়ে প্রভাষক এটিএম নুরুল আমিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন। আমি গাছ কেটে বিক্রয় করে দিয়েছি গাছটি স্থানীয় বিদ্যুৎ লাইন ও কলেজের দেওয়াল উপরে থাকায়। ঝুকিপুর্ন বিভেচনা করে জনস্বার্থে গাছটি কেটেছি,তা না হলে যে কোন মুর্হুতে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো। এ ব্যাপারে কলেজ প্রশাসন কে অনেক বার অভহিত করেছি। তারা কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় অতি ঝুকিপর্ণ বিভেচনা করে গাছটি কেটেছি, তবে গাছটি বিক্রয়ের টাকা কলেজ কেরানির কাছে রক্ষিত আছে।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

টাকা নিয়ে দলে নির্বাচনের অভিযোগ উঠল সাবেক আইপিএল তারকার বিরুদ্ধে। বেশ কিছু ক্রিকেট সংস্থার কর্মকর্তা নজরদারিতে রয়েছেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্ৰতিবেদন অনুযায়ী, সিকে নাইডু ট্রফিতে হিমাচল প্ৰদেশের অনূর্ধ্ব-২৩ দলে সুযোগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক ক্রিকেটারের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আইপিএল তারকা ও রাজ্য ক্রিকেট সংস্থার একাধিক কর্তার বিরুদ্ধে।

উত্তর প্রদেশের আনশুল রাজ নামের এক ক্রিকেটার এমন অভিযোগ করেন।  অনূর্ধ্ব-২৩ দলে সুযোগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ায় সরাসরি অভিযুক্ত গুরুগ্রামের এক করপোরেট ম্যানেজমেন্ট ফার্মের প্রেসিডেন্ট আশুতোষ বোরা।

দিল্লি, অরুণাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড ক্রিকেট সংস্থা এবং বিহার টি১০ ক্রিকেট আয়োজকদের নোটিশ পাঠানো হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- করপোরেট ম্যানেজমেন্ট ফার্মের প্রেসিডেন্ট আশুতোষ বোরা ও সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর তার বোন চিত্রাকে ৩ সেপ্টেম্বর পুলিশ গ্রেফতার করে।

এমন অভিযোগ নিয়ে আনশুল জানান, সিকিম দলের সুযোগ দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয় তাকে। তবে শেষপর্যন্ত উত্তর প্রদেশ ক্রিকেটার বুঝতে পারেন তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন।

আনশুল রাজের অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে- দরিদ্র সাধারণ পরিবারের হলেও দেশের হয়ে খেলার স্বপ্ন আমার বহুদিনের। অভিযুক্তরা আমাকে কার্যত ফকির করে দিয়েছে। ওদের বিরুদ্ধে যেন মামলা দায়ের করা হয়।

অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, দিল্লির হয়ে বহুদিন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলা জাভেদ খানকে সেই সংস্থার মুখ্য হিসেবে ব্যবহার করা হতো। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের স্কোয়াডেও এক সময় ছিলেন জাভেদ খান।

টাকা দিলেই দলে সুযোগ!

LifePharm